অন্যের ঘর দখল করতে দলীয় সাইনবোর্ড ব্যবহার


Admin   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ১৫ জুন, ২০২০

পিরোজপুরের কাউখালীতে অন্যের ঘর দখল করার পর আওয়ামী লীগের দলীয় সাইবোর্ড টাঙানোর অভিযোগ ওঠেছে দখলদারদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর ভুক্তভোগী ঘরের মালিক গত ৭ জুন কাউখালী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী ওই ঘরের মালিক মো. ইব্রাহিম শিকদার। তিনি উপজেলার শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের ফলইবুনিয়া গ্রামের মৃত খোরশেদ আলী শিকদারের ছেলে। জানা গেছে, ওই ইউনিয়নের পাঙ্গাশিয়া বাজারের ব্রিজের দক্ষিণ পাশে স্থানীয় ইব্রাহিম শিকদারের একই মালিকাধীন ৫টি দোকান ঘর রয়েছে। এর মধ্যে ৪টি ঘর ভাড়া দেয়া ও ১টি ওই মালিকের   নিজের কাজের জন্য মালামাল ভর্তি করে রাখা রয়েছে। কিন্তু গত ৩ জুন দুপুরে ওই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেল শিকদারের নেতৃত্বে স্থানীয় খলিল গাজীর ছেলে পলাশ গাজী, ছিদ্দিক খানের ছেলে মো. বাবু খান, ফারুক শিকদারের ছেলে সজিব শিকদার, মজলু খানের ছেলে মো. শরিফুল খান, বারেক শিকদারের ছেলে মো. ওসমান শিকদারসহ আরও ৭/৮ জন ওই মালামাল ভর্তি ঘরটির তালা ভেঙে সেটি দখল করে নেন। এসময় ওই ঘরে থাকা কাঠসহ বিভিন্ন মালামাল ভাঙচুর করে ফেলে দেয়। পরে তা দখল করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয় হিসাবে সাইনবোর্ড সাটিয়ে দেন। দখল কাজে বাধা দিলে ঘরের মালিকসহ তাদের পরিবারকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়া হয়।ঘরটি দখলকারী অভিযুক্ত ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেল শিকদার জাতীয় পার্টি (মঞ্জু) সমর্থিত শিয়ালকাঠী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন শিকদারের ভাইয়ের ছেলে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সোহেল শিকদার জানান, ওই ঘরের জায়গা নিয়ে ঘরের মালিক দাবী করা ইব্রাহিমের সাথে স্থানীয় এক ব্যক্তির সাথে বিরোধ রয়েছে। সেই জমি আমাদের কিছু ছোটভাইরা মিলে দলীয় অফিসের জন্য নেয়া হয়েছে। ওই জমির মালিক ইব্রাহিম সিকদার নন।  শিয়ালকাঠী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মাস্টার মো. মনিরুজ্জামান ওই ঘর দখলের ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানান। তবে সাধারণ সম্পাদক মো. নাছির উদ্দিন জানান, ওই ঘরটি স্থানীয় এক অসহায় ব্যক্তির।  ওই ঘরটি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের ছোট ভাই লতিফ শিকদার দখল করতে তার ভাইয়ের ছেলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সোহেল শিকদারকে ব্যাবহার করেছেন। তিনি আরও জানান, অন্যের ঘর দখল করে তাতে  দলীয় অফিস হিসাবে সাইন বোর্ড সাঁটানোর  ব্যাপারে আমরা পুলিশকে অবহিত করেছি। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেছি। উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আমিনুল রশিদ মিল্টন জানান, কারো জমি দখল বা কোনও অপরাধ করে তা আড়াল করতে দলের নাম ব্যবহার করলে তার দায় দল নিবে না। এমন জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ জানাবো। এ ব্যাপারে কাউখালী থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে জানতে হবে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।